ছাদে টবে বড়ই চাষ

ছাদে টবে বড়ই চাষ

শহরের প্রতিটি বাড়িতে ছাদ কৃষির জনপ্রিয়তা বর্তমানে দিন দিন বেড়েই চলেছে ।প্রিয় পাঠক,এরই পরিপ্রেক্ষিতে আজ আমরা আলোচনা করবো ছাদে টবে বড়ই চাষ পদ্ধতি নিয়ে।সবাই মনোযোগ দিয়ে পড়ুন এবং শেয়ার করে দিন অন্য ছাদ বাগান প্রেমী বন্ধুদের কাছে।

সাম্প্রতিক সময়ে সারাদেশে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে বড়ই।দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার প্রায় সব দেশেই কুল চাষ করা হয়ে থাকে। বাংলাদেশ অনেক জায়গায় বর্তমানে বাণিজ্যিকভাবে এই কুল বরই চাষ হয়ে থাকে।  কিন্তু টবে কুল চাষ পদ্ধতি এখনো অনেকটাই নতুন। টবে কুল বড়ই গাছের যত্ন নেবার নিয়ম স্বাভাবিক এর চেয়ে কিছুটা ভিন্ন। অনেকেই হয়তো জানেন না বাগানে টবে লাগানো একটি বরই গাছের যত্ন কিভাবে নিতে হয় ।তাই আজ আমরা ছাদে টবে বড়ই চাষ পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করব।

মাটি তৈরি ও টব ভর্তিকরণঃ
সমপরিমাণ মাটি ও পঁচা গোবর ভালভাবে মিশিয়ে ড্রাম বা টবটি ভরাট করে দুই সপ্তাহ রেখে দিয়ে চারা রোপন করতে হবে এবং ১৫ দিন চারটি সিলভামিক্স ট্যাবলেট গাছের তিন ইঞ্চি গভীরে পুঁতে দিতে হবে। এইভাবে ফুল আসার সময় আর একবার সিলভামিক্স ট্যাবলেট প্রয়োগ করতে হবে। টবের তলায় ১ ইঞ্চি পরিমাণ ইটের খোয়া, পচাঁ পাতা এবং খড় বিছিয়ে দিতে হবে।পুরো টব বা ড্রামটি সমপরিমান পচাঁ গোবর ও দো-আঁশ মাটির মিশ্রন দিয়ে ভরে দিতে হবে।এবার টবের মাঝ খানে একটি সুস্থ্য ও সবল কলম রোপন করতে হবে। এ জন্য কোন প্রকার রাসায়নিক সারের দরকার নাই।প্রয়োজন অনুসারে সেচ ও নিকাশের ব্যবস্থা রাখতে হবে।

পরিচর্যাঃ
বাগান সব সময় পরিষ্কার-পরিছন্ন রাখতে হবে।বাগানের সব আগাছা দমন করতে হবে।

রোগবালাই ও কীট দমনঃ
পাউডারি মিলডিউ-সালফার জাতীয় ছত্রাকনাশক প্রতি লিটার জলতে দুই গ্রাম হারে মিশিয়ে সাত থেকে ১০ দিন পরপর দুইবার স্প্রে করতে হবে।
অ্যানথ্রাকনোজ-কার্বেনডাজিম গ্রুপের ছত্রাকনাশক সাত থেকে ১০ দিন পরপর দুই বার স্প্রে করতে হবে।
ব্যাগওয়ার্ম-স্পর্শক প্রবাহমান কীটনাশক নির্দেশিত মাত্রায় সাত থেকে ১০ দিন পরপর স্প্রে করতে হবে।

Comments are closed.